Wednesday, January 18, 2012

জননী

আকাশ জুড়ে কি সুন্দর তারাহিরের অলংকারে্র উপরে রূপসী
চাঁদের আলোয় মৃদু ঠান্ডা হাওয়া
গাছের ছায়ায় গভীর মায়া

এই সবই তো সুন্দর
এ জীবনের আনন্দ
তার থেকেও সুন্দর আমার মা

মৌনতা

নিরবে একা একা বসে থাকি আমি যখনতোমারি ছবি  ভাসে যে সারাক্ষন সারাক্ষন
এ মন সারাক্ষন

মৌনতা আছে র্দ্বীঘশ্বাসের আড়ালে হৃদয়ে
তবু নেই তো কোন দুঃখ এমনে
স্মৃতি আজ শুধু  স্মৃতিকবিতা তুমি হৃদয়ে
অন্তরে আছো শুধু স্মৃতি হয়ে

হেয়ালী

মিথ্যারই বাহনে সোওয়ারী এই জীবনপারবে কি কুয়াশা্র  পথটাকে পেরোতে

যদি না জানা যায়
মিথ্যের পরিচয় কোন সময়
কখনো কি যাবে
সত্যকে চেনা  এই জীবনে

আধাঁরে রাতজাগা পূজারী এই জীবন
তাকে কি নিষিদ্ধ পথ ডাকে এই রাতে

অমানুষ

শেষ বিকেল আলো আধাঁরি আবছায়া তুমি অস্পৃশ্য প্রতিমারোদ পোড়া নীল ধমনী রক্তধারায় বিষাদ দহন তীব্রতায়
আশা হারিয়ে স্বপ্নহীনতায় আমি আঁকড়ে আঁধার
দগ্ধ আঘাতের পরশ তুমি দিয়েছ আমায়

চাইনা তোমায় আমি কখনও আমারই আশে পাশে
ঘৃণা আজন্ম রয়ে যাবে তোমায় তোমায় ভেবে
জ্বলে ছারখার হয়ে যাও তুমি ......ঘৃণার আগুনে পুড়ে
পাবে নাকো ক্ষমা কো্নদিনও ...আমার কাছ থেকে
...........................ক্ষমার যোগ্য নও তুমি

শেখানো বর্ণনা

এই তো এই নিঝুম রাতস্বপ্নীল এই তারার সাজ
ছন্দে গড়া এই তাজ
এই পৃথিবী
এই তো এই সবুজ মাঠ
আকাশের এই নীল বরণ
আমার দেহের গড়ন
এই পৃথিবী
এই তো এই  পৃথিবী
শেখানো দৃষ্টির শেখানো ছবি
এই তো এই  পৃথিবী
শেখানো বর্ণনা

বৃষ্টি

বৃষ্টি নেমেছে রিমঝিমরিম সুরের লহরীনিঝুম রাতে
বৃষ্টি নেমেছে কত স্মৃতি বুকে নিয়ে
উদাস করেছে এই রাত

বৃষ্টি নেমেছে মনে পড়ে যায় আমার গাঁ
বৃষ্টি নেমেছে ঐ মাটির ভালোবাসায়
বার বার শুধু ডাকে
ফিরে আয় আয় আয়

আলো

কি আশা নিয়ে জেগেছি সকালেআঁকলাম সূর্য তোমার কপালে
অথচ সারাকাশ জলে বিম্বিত
দৃষ্টি বিভ্রম কল্পনা প্রসূত
রকম অনেক আশা নিয়ে আমি জেগে উঠি
ক্ষত সেরে গেলে আবার বিব্রত হয়ে উঠি

আলো আরো আলো
আঁধার ঘনা আলো

নির্বাসন

আমাদের ভালোবাসা,কোন কারণেএকাকী করেছে দুজনাকে
হৃদয়ে ধুলোজমা জীবনের পথে
নিঃস্ব হয়েছি আমি

জানাতে চাইনি ,পালাবার কারণ
নীরব থেকেছি, নিধর হয়ে
দৃষ্টিটা শুধু ঝাপসা ছিলো যে
অন্যরকম এক চোখের জলে
বেদনার আবেগে
প্রশ্বাস নেয়া আর নিঃশ্বাস ছাড়তে গিয়ে
জীবন আমার থমকে
আসন্ন এক মরণে

যখন

যখন মেঘের চাদর টেনেআবছা জেগে জোসনা
টিপ টিপ বৃষ্টি
জেনো আমি পাশে তোমার
এক সাথে ভিজছি
যখন সুরুজ দিনের
মাতাল হাওয়ায়
এলোমেলো তোমার চুল
জেনো আমি পাশে তোমার
তোমায় দেখছি
যখন আমি থাকবনা
মনে রেখো আমার এই গান
যখন আমি থাকবনা
মনে রেখো আমার এই গান
যখন

নেই প্রয়োজন

তুমি আমি যেন ছিলেম স্বপ্নে গড়া যুগলজলরঙ্গে আঁকা ছিলো যে স্বপ্নে ভরা ভুবন

কত সুখের আনাগোনায় কেটেছিল সময়
বসে ভাবি আজও আমি কি করে এমন হয়

আজ তোমাকে নেই প্রয়োজন
নেই আয়োজন নেই এই মনে
ভালোবাসা যে ধূলোবালিতে
মিশে যায় সময়ের এই ক্ষনে

বেওয়ারিশ

রাতের অটুট নিস্তব্ধতায় ভেঙ্গে গেলো কোনো একআহ.. রাত জাগা পাখির ডাকে
শেওলাধরা পুরানো পাঁচিলে ঘেরা গোরস্থানে
আহ ..উঠছে নামছে গ্লানির কোদাল
তৈরী হচ্ছে নতুন আবাস উদ্দেশ্য পরপার
উদ্দেশ্য পরপার

স্বাধীকার!

তুমি কি দেখেছো দুঃসময়ের সন্তান
চিৎকার করে জানায় অধিকারের কথা
তুমি কি শুনেছো এ সময়ের চিৎকার
কন্টকে পা বাড়ায় কিসের হ্তাশায়